Breaking

Thursday, July 23, 2020

জানা গেছে যে তিন শর্ত পূরণ হলেই বাজারে আসবে করোনা ভ্যাকসিন (অক্সফোর্ড)


জানা গেছে যে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ভ্যাকসিন মহামারি করোনা ভাইরাস নিয়ে বিশ্ব জুড়ে যে কয়টি ভ্যাকসিন আশা যোগাচ্ছে তার মধ্যে অন্যতম। এটির চূড়ান্ত সাফল্যের বিষয়টি এখনও অনিশ্চিত, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভাবিত করোনা ভাইরাসের সম্ভাব্য ভ্যাকসিনটি ব্যাপক সফলতা পেলেও এখনও অনিশ্চিত।
এটি বাজারে আনার আগে তিনটি শর্ত অবশ্যই পূরণ হতে হবে এ কথা ভ্যাকসিনটির গবেষণা দলের প্রধান সারাহ গিলবার্ট বিবিসি রেডিওকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন। বিবিসি রেডিওকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আরও বলেছেন যে এর কোনও একটির ব্যাঘাত ঘটলেই ভ্যাকসিনটির সাফল্য বিলম্বিত হবে। তার মানে এটা আর বাজারে আসবে না।

সারাহ গিলবার্ট সারাহ গিলবার্ট এটি বাজারে আনার আগে তিনটি শর্ত বলেন তা হল, সারাহ গিলবার্ট বলেন প্রথমত শেষ ধাপের ট্রায়ালে এটি কার্যকর প্রমাণিত হতে হবে। সারাহ গিলবার্ট বলেন যে দ্বিতীয়ত বিপুল সংখ্যক ভ্যাকসিন উৎপাদন করতে হবে।তৃতীয়ত শর্ত অবশ্যই পূরণ করতে হবে তা হল বিপুল সংখ্যক মানুষকে টিকা প্রদানের আগে নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থাগুলোকে এটি জরুরি ব্যবহারের জন্য দ্রুত অনুমোদন দিতে হবে। এর কোনও এক ধাপে বিলম্ব হলে ভ্যাকসিনটি নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হবে বলে জানান সারাহ গিলবার্ট।সারাহ গিলবার্ট বলেন বর্তমানে ব্রাজিল এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় অক্সফোর্ডের এই সম্ভাব্য ভ্যাকসিনটির শেষ ধাপের ট্রায়াল চলছে। সারাহ গিলবার্ট বলেন যে এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রেও ট্রায়াল চালানোর আলোচনা চলছে।



একটি হাসির খবর জানা গেছে যে যুক্তরাষ্ট্রের হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি করোনাকে বললেন ''ট্রাম্প ভাইরাস''। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় চরম ব্যর্থতায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কড়া সমালোচনা করেন। এই সমালোচনা করা হয় মঙ্গলবার( ২১ জুলাই) সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি এমন মন্তব্য করেন। গণমাধ্যমে বক্তব্য রাখতে গিয়ে স্পিকার পেলোসি বলেন করোনা মহামারি পরিস্থিতি ট্রাম্পের ব্যর্থতায়, ভালো হওয়ার থেকে বরং আরও খারাপ হয়েছে। জানা গেছে যে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প মঙ্গলবার দেশটির করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফিং করেন। কয়েকদিন বন্ধ থাকার পর আবারও নিয়মিত ব্রিফিং শুরু করেন ট্রাম্প, কিন্তু এ ব্রিফিংয়ে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসের প্রধান ডা. ফাউসিকে। ট্রাম্পের ব্রিফিং শেষে করোনাভাইরাসকে 'ট্রাম্প ভাইরাস' নামে আখ্যা দেন শীর্ষ ডেমোক্রেট নেত্রী স্পিকার পেলোসি এ জন্য তাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।

No comments:

Post a Comment