Breaking

Thursday, July 30, 2020

দুই পাতার ব্যাংক হিসাব খোলার সময়সীমা বৃদ্ধি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক


জানা গেছে যে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে দুই পাতার ব্যাংক হিসাব ফরম চালুর সময়সীমা বৃদ্ধি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক আরও জানা গেছে যে ফরম চালুর সময়সীমা আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৃদ্ধি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. নজরুল ইসলাম গত বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে নতুন এ নির্দেশনা জারি করেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. নজরুল ইসলাম বলেন যে সময়সীমা আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হলো কোভিড-১৯'র কারণে বর্তমান প্রেক্ষাপট বিবেচনায় হাল-নাগাদকৃত হিসাব খোলার ফরমসমূহ প্রচলন করার সময়সীমা। যা চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে দেয়া বিআরপিডি সার্কুলার নং-০২'র সব নির্দেশনা অনুযায়ী ৩০ জুনের মধ্যে প্রচলন করার নির্দেশনা দেয়াছিল বলে জানান বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. নজরুল ইসলাম।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. নজরুল ইসলাম বলেন যে বাংলাদেশের যে কোন নাগরিক হিসাব খুলতে পারবেন, নতুন নিয়মে ব্যাংকের হিসাব খুলতে কিছু সুনির্দিষ্ট তথ্য পূরণ ও জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়েই। বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. নজরুল ইসলাম বলেন এক্ষেত্রে কোন হিসাবধারীর প্রত্যয়ণও প্রয়োজন হবে না। তিনি আরও বলেন যে জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকলে জন্ম নিবন্ধন বা পাসপোর্টের কপি থাকলেও খোলা যাবে ব্যাংক হিসাব। তাও না থাকলে ওয়ার্ড বা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের প্রত্যয়ণ পত্র দিয়েও খোলা যাবে বলে জানান বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. নজরুল ইসলাম। জানা গেছে যে নতুন নিয়মে ব্যাংক হিসাব খোলার ফরম হবে দুই পাতার। আর ৫ পাতার হবে ঋণ নেয়ার ফরম। বর্তমানে ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে হলে গ্রাহককে ১৩ পাতার ফরম পূরণ করতে হবে বলে জানান বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. 
নজরুল ইসলাম।



 নতুন এ পদ্ধতি গত বছরের অক্টোবর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা থাকলেও অভ্যন্তরীণ জটিলতা থেকে বের হতে না পারায় এখনো কার্যকর করতে পারেনি ব্যাংকগুলো। বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. নজরুল ইসলাম বলে যে নতুন এ পদ্ধতি ব্যাংকগুলোতে চালু হলে স্কুল শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি, লেখাপড়া করে না এমন শিশু, দিনমজুরসহ সব শ্রেণিপেশার মানুষের জন্যই সহজ হবে।ব্যাংকের ব্যবহৃত ফরমগুলো সহজীকরণের লক্ষ্যে সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রণালয়ের আর্থিক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব এবিএম রুহুল আজাদের সভাপতিত্বে এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয় গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর।



No comments:

Post a Comment