Breaking

Saturday, July 18, 2020

কোথায় গেল করোনায় আক্রান্ত ২ হাজারের বেশি মানুষ


জানা গেছে যে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না ভারতের তেলঙ্গানায় ২ হাজারের বেশি করোনা রোগীকে। দেশটির সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, তেলঙ্গানা রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের বরাত দিয়ে যে গত ১০ দিনে তেলেঙ্গানায় করোনা পজিটিভ আসা ২ হাজারের বেশি রোগীকে খুঁজে পাচ্ছে না তেলঙ্গানা প্রশাসন।

জানা গেছে যে গত বৃহস্পতিবার (১৭ জুলাই) এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়ে সবাইকে সতর্ক করে দেয় রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর। সরকারি হাসপাতাল ও অন্যান্য পরীক্ষা কেন্দ্রে গত ১০ দিন ধরে চলা র‌্যাপিড টেস্টে ২ হাজারেরও বেশি জনের পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এ কথা দফতরের বিবৃতিতে বলা হয়।

দফতরের বিবৃতিতে বলা হয় যে ওই সব রোগীরা টেস্টের সময় ভুল (মিথ্যা) ফোন নম্বর দিয়েছিলেন এবং অনেকে তাদের বাড়ির ঠিকানাও ভুল দিয়েছিলেন। তাই এখন স্বাভাবিকভাবেই তাদের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না, দফতরের বিবৃতিতে বলা হয়। মূলত সামাজিকভাবে বিচ্ছিন্ন হওয়ার ভয়েই রিপোর্টে রোগীরা মিথ্যা তথ্য দিয়েছিলেন বলে ধারণা কর্তৃপক্ষের। বিষয়টি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এবং এটা খুবই ভয়ংকর একটি সংবাদ,এ কথা গ্রেটার হায়দরাবাদ মিউনিসিপ্যাল করপোরেশনের কমিশনার ডিএস লোকেশ কুমার বলেন।
গ্রেটার হায়দরাবাদ মিউনিসিপ্যাল করপোরেশনের কমিশনার ডিএস লোকেশ কুমার বলেন তাহলে সংক্রমণ আরও বেড়ে যাবে যদি ভুল তথ্য দেয়া ওসব আক্রান্তরা যদি নির্দেশ না মেনে রাস্তায় ঘুরে বেড়ান।

আমরা খুঁজতে গিয়ে দেখি একই নম্বর দিয়েছেন অনন্ত ১০ জন, এরপর সেই নম্বরে ফোন করে সেটিও বন্ধ পাই এ কথা ডিএস লোকেশ কুমার বলেন। অনেকদিন আগেই ভারতে করোনার বিস্ফোরণ ঘটেছে। হু হু করে করোনা রোগী বাড়তে থাকায় আক্রান্তের দিক দিয়ে দেশটির অবস্থান এখন তৃতীয় এ অবস্থান করেছে। অনেক দিন ধরে করোনা ভারতের হায়দরাবাদসহ তেলঙ্গানায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সেই রাজ্যে ১ হাজার ৬৭৬ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে তেলঙ্গানা স্বাস্থ্য দফতর।
জানা গেছে যে এখন পর্যন্ত সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪১ হাজার ছাড়িয়ে গেছে এবং এতে মারা গেছেন ৩৯৬ জন।



জানা গেছে যে মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে দীর্ঘ চার মাস পর জুমার নামাজ আদায় করলেন কুয়েতের মুসল্লিরা। তবে কয়েক মাস পর জুমার নামাজ আদায় করতে পেরে স্থানীয়দের পাশাপাশি খুশি প্রবাসী বাংলাদেশিরাও। জানাগেছে যে এ লক্ষ্যে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় যেসব নির্দেশনা দেয়া হয়েছে তা হলো- জুমার নামাজের ৩০ মিনিট আগে মসজিদ খোলা হবে। এবং সর্বনিম্ন ১৮ ও সর্বোচ্চ ৫০ বছর বয়স্কদেরই মসজিদে প্রবেশানুমতি রয়েছে।

No comments:

Post a Comment